সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মহেশপুরে ইজিবাইক চালককে পিটিয়ে হত্যা ১৪/০৯/২০২১ তারিখ রাউজানে চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয় এর অভিযানে রাউজানে একাধিক মদের মামলার আসামী ১৫ লিটার মদ সহ গ্রেফতার ০১ জন, মামলা দায়েরঃ দ্বীপ উন্নয়ন সংস্থার কর্মপ্রচেষ্টায় প্রাণী সুরক্ষাসেবা কার্যক্রম। জীবননগরে ওষুধের দাম বেশি নেওয়ার অভিযোগ !!! পাব কি ঠাঁই? সরকারি কর্মকর্তাদের ‘স্যার-ম্যাডাম’ বলার রীতি নেই প্রাথমিক বিদ্যালয় রিওপেনিং নিয়ে নোয়াখালী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস কৃর্তক আলোচনা ২৫ বছরের নাতির সঙ্গে ৫৫ বছরের দাদির বিয়ে রাঙ্গুনীয়ার উত্তর পদুয়া নাপিত পুকুরিয়া’য় ১,০০০ পিস ইয়াবা সহ টেকনাফের মাদক পাচারকারী গ্রেফতার ০১ জন, মামলা দায়েরঃ হাতিয়ায় র‍্যাবের হাতে অস্ত্রসহ ২ সন্ত্রাসী গ্রেফতার !

ছেলের হাত থেকে প্রাণে বাঁচতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বীরমুক্তিযোদ্ধা বাবা;

দৈনিক বাংলার মুখ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৮৫ বার পড়া হয়েছে

 

আতিকুর রহমান(আতিক) জেলা প্রতিনিধি,টাংগাইলঃ
টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ফলদা চরপাড়া গ্রামের অাবুল কাশেম নামে এক বীরমুক্তিযোদ্ধা বাবা ছেলের প্রাণ নাশের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

অদম্য সাহস অার যৌবনের বারুদ মাখা সময়ে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করলেও বার্ধক্যে আজ দস্যু ছেলে হানিফার হাতে ভয়াবহ নির্যাতন সইতে না পেরে ২ মাস ধরে নিজ ভিটামাটি ছেড়ে প্রান বাঁচাতে অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছে অসহায় বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম।

অভিযোগে জানা যায়, টাঙ্গাইল ভূঞাপুর উপজেলার ফলদা চরপাড়া গ্রামে ছেলের হানিফা তার বাবাকে মারধর ও নির্যাতন করছেন অনেক দিন যাবৎ।

মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম তার সাত মেয়ে ও এক ছেলে। কিন্তু ছেলে,তার সাত মেয়েকে বঞ্চিত করে বাড়ীঘরসহ সয় সম্পত্তি,ও মুক্তিযোদ্ধার ভাতার পাশ বই ছেলের নামে লেখে না দেওয়ার বৃদ্ধ বাবাকে মারপিট ও হত্যার চেষ্টা করা সহ বাড়ীঘর থেকে বের করে দেওয়ায় অভিযোগ রয়েছে।

গত ২৭ জুন রাতের আধারে হানিফা তার সাংগ-বাহিনী নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বাবাকে ছুড়ি দিয়ে হত্যার করার ভয় দেখিয়ে ঘরে থাকা নগদ ১ লক্ষ ৮২ হাজার টাকা ও মুক্তিযোদ্ধার পাশবই চেক সহ প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র হাতিয়ে নিয়ে বাড়ী থেকে বের করে দেন। এবং ঘরে থাকা খাদ্যশস্য বিভিন্ন বিভিন্ন মালামাল বিক্রি করে সমস্ত টাকা আত্যসাৎ করে।

বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধ আবুল কাশেম বলেন, ছেলের অত্যাচার আর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গত ১ জুন বাদী হয়ে ছেলে হানিফার বিরুদ্ধে ভূয়াপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। তবে থানায় অভিযোগ দিয়েও আমি বসতবাড়িতে প্রবেশ করতে পারছি না। মামলা করায় আরো ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিনিয়তই ছেলে হানিফা ও তার সাথে থাকা লোকজন মোবাইলে হুমকী দিয়ে যাচ্ছে। এই বৃদ্ধ বয়সে ২ মাস ধরে মেয়ের বাড়ী এবং এ বাড়ী ও বাড়ী পালিয়ে বেড়াচ্ছি। আমি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে বিচার চাই।

এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধার মেয়েদের সাথে কথা বললে তারা বলেন,আমার আব্বা মুক্তিযোদ্ধা।অথচ সম্পদের লোভে আমার ভাই হানিফা তার দলবল নিয়ে আমার আব্বার উপর হামলা করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ১ লক্ষ ৯২ হাজার টাকা নিয়ে নেয়। এবং জমিজমা লেখে না দেওয়ার কারনে তাকে বেদম মারধর করে ঘরে আটকে রাখে। সংবাদ পেয়ে আমরা তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসি। আমরা তার সুষ্ঠ বিচার চাই।

সরেজমিনে তার নিজ বাড়িতে গেলে বাড়ীঘর তালাবদ্ধ অবস্থা দেখা যায়, ছেলে হানিফাকে বাড়ীতে পাওয়া যায়নি। তিনি ঢাকায় পালিয়ে অাত্মগোপন করে আছেন বলে এলাকাবাসী জানান । মোবাইলে কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোন ধরেনি।

মুক্তিযোদ্ধার মেয়ের ঘরে ছেলে নাতনী মানিক জানায়,তার মামা তার নানাকে মারপিট করে বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। তাই আমরা নানাকে আশ্রয় দিয়েছি, সে আমাদের কে প্রতিনিয়তই মোবাইলে হুমকী দিয়ে যাচ্ছে। আমরা নিরাপত্তাহীনতায় আছি। আমরা সরকারের কাছে নিরাপত্তা চাই। সুষ্ঠ বিচার চাই।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ৭২ হাজার টাকা ছেলে নিয়েছে।তবে,কারো কাছে টাকার সঠিক হিসাব পাওয়া যায়নি।

ভুয়াপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) রাশিদুল ইসলাম বলেন, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এস আই আমিনুলকে তদন্তদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বাবা ছেলের মধ্যে ঝগড়া হয়েছে। ছেলে ঢাকা থেকে আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পোস্ট
© All rights reserved © 2021 dainikbanglarmukh
Theme Developed BY ThemesBazar.Com