সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:১৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন স্বরুপপুর  ইউপির আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী- মিজানুর রহমান  ঝিনাইদহে বিএমএসএফ’র ১৪ দফা নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা আহত প্রধান শিক্ষকের পাশে দাঁড়াতে গোপালগঞ্জে যাচ্ছেন শিক্ষক সমিতির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। মহেশপুরে বিএনপির ২ টি ইউনিয়নে দ্বিবার্ষিক সম্মেলণ অনুষ্ঠিত। মহেশপুরে ৪ নং স্বরুপপুর  ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান এডভোকেট.  হুমায়ন কবির  কে আবারও চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী। ঝিনাইদহের মহেশপুরে পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক জাহিদ হাসান লাঞ্চিত  মহেশপুরে ৪ নং স্বরুপপুর ইউনিয়ন এর মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল হান্নান মহেশপুরে চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী আব্দুল হান্নানের গণসংযোগ রাতের প্রহরী অনুভূতি

ধর্ষণের উপহার কি প্রধান শিক্ষক?

দৈনিক বাংলার মুখ ডেস্ক :
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৭ জুন, ২০১৮
  • ৪৪৯ বার পড়া হয়েছে

ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে বরগুনার একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদ থেকে চাকরীচ্যুতকে ১৬ বছর পর সেই বিদ্যালয়েরই প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। তবে অভিযুক্ত শিক্ষক বলছেন,সব মিথ্যা অভিযোগ। আর শিক্ষা বিভাগ বলছে, নিয়োগ পরীক্ষার আগে এমন অভিযোগ জানতোনা নিয়োগ বোর্ড।

বরগুনার গর্জনবুনিয়া স্কুল এন্ড কলেজে সম্প্রতি নিয়োগ পেয়েছেন প্রধান শিক্ষক আবুল বাসার। ২০০২ সালে এই বিদ্যালয়েরই সহকারী শিক্ষক থাকাকালে বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে চাকরীচ্যুত হন তিনি।

তৎকালীন ম্যানেজিং কমিটি সহ-সভাপতি বলেন, আমাদের এলাকার একতা মেয়েকে নিয়ে সে বেশ কয়েকদিন লাপাত্তা ছিল।’

ইংরেজি সাবেক সহকারী শিক্ষক বলেন, ‘মেয়েটাকে নিয়ে যখন আসছে তখন স্কুলের চাপে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছিল।’

প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পেয়ে প্রথমেই তার অপকর্মের প্রমাণ ঢাকার চেষ্টা চালান আবুল বাসার। তখনকার রেজুলেশনে তার নাম মুছে ফেলার চেষ্টা করেছেন। তবে খুব ভালভাবে দেখলে তার অপকর্মের কথাগুলোর সাথে তার নামের অস্তিত্ব মেলে। এ অবস্থায় উৎকণ্ঠার মধ্যে আছে অধ্যয়নরত ছাত্রীরা।

ছাত্রী একজন বলেন, সে এখানে পড়লে আমরা এখানে কেউ পড়বো না।’

আরেকজন বলেন, সে যেহেতু ধর্ষণের অভিযোগে চাকরীচ্যুত হয়েছিল, তাহলে কি ধর্ষণের উপহার প্রধান শিক্ষক?
আবারো আবুল বাশার প্রধান শিক্ষক নিয়োগ করায় অভিভাবকসহ ও এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পোস্ট
© All rights reserved © 2021 dainikbanglarmukh
Theme Developed BY ThemesBazar.Com