বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০২:৫২ অপরাহ্ন

নোটিশ :
সারাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে। বিস্তারিত জানতে কল করুন : ০১৯২৭৬১৬৪৬৩
সংবাদ শিরোনাম :
মাস্ক পরিধান নিশ্চিতে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট মৌলভীবাজারে শাহজালাল (র.) ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের দোয়া মাহফিল ঢাকায় ফেডারেশন অব সার্ক জার্নালিস্ট অর্গানাইজেশনের মতবিনিমিয় সভা মহেশপুরের শ্যামকুড় ইউনিয়নে পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ক্যাম্প স্থাপনের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত। ঝিনাইদহে দুই সাংবাদিকের নামে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে সমাবেশ ও মানববন্ধন পালিত নোয়াখালী হাতিয়া উপজেলার কৃতি সন্তান মোহাম্মদ খিজির হায়াত বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত ঢাকায় আরজেএফ’র উদ্যোগে স্মরণসভা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃতি ছাত্র হিমেল সাহেব বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। শরীয়তপুরের ডা. হেলাল উদ্দিন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃতি ছাত্র জহির উদ্দিন খসরু বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত
রংপুরের”সামিউল হাসান লিটন” এক জন কিংবদন্তি সংগীত শিল্পী;

রংপুরের”সামিউল হাসান লিটন” এক জন কিংবদন্তি সংগীত শিল্পী;

 

আতিকুর রহমান(আতিক),
ভূঞাপুর,টাংগাইলঃঅঞ্চল ভিত্তিক সুর,গান,কালচার চর্চার স্বর্গরাজ্য বলা হয় রংপুর অঞ্চলকে,যেখানে মানুষ অানন্দ-বিনোদন অার শান্তির পরশ নিয়ে বসবাস করে। অার এমনই সুন্দর পরিবেশ মাখা পাঠান পাড়া গ্রামে বসবাস করেন ভাওয়াইয়া গানে জনপ্রিয় সংগীত সামিউল হাসান লিটন। বাবা মায়ের অাদর মাখা সবুজবীথি পল্লিবালার ভাই বোনদের মধ্যে তিনি অতুলনীয় সুন্দর মনের মানুষ। যদিও তার ভাই বাপ্পা গীটারের সুরে গান করে।সাব্বির হাসান লিখন ডেন্টাল ডাক্তার। তার পরেও ব্যতিক্রম এক জনই,সে সামিউল হাসান লিটন।

সে অনেক অাগের কথা,অামি সবেমাত্র রংপুরে গিয়েছি।পরিবেশটা সুন্দর।প্রতিদিন রাস্তায় হেটে বেড়াই।

হঠাৎ দেখি রংপুর পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের সামনে এক সাপড়া ঘর থেকে হারমোনিয়ামের সুর। কাছে গিয়ে দেখি অামির ভাই তবলা বাজাচ্ছে,মোস্তাফা(মেস্তা) ভাই গান করছে।অার মধুর সুর তুলে হারমোনিয়াম বাজাচ্ছেন।রাজা ভাই এসে বললেন,লিটন স্যার গান ধরেন। অামার দিকে তাকিয়ে মিষ্টি কণ্ঠে বললেন বসো।সেই ভাংগা ঘর সুদীপ্ত সাংস্কৃতিক সংগঠনে বসে পড়লাম।

একদিন স্যার বললেন,গান করো। হাজার হাজার মিছিলের ভিরে এ গান টি করলাম।তিনি প্রতিদিন সবাইকে গান শেখাতো। পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে চাকরী করতেন মাহবুব ভাই বলেন,যে অামাদেন গান শেখাচ্ছেন তিনি একাধারে সুরকার,গীতিকার, সংগীত শিল্পী,উপস্থাপক,নাট্যকার। এর পর পরই অামির, মেস্তা ভাই হারিয়ে গেলেন দুর অাকাশে।
ভারাক্রান্ত মন নিয়ে,ক্লাব নিয়ে যাওয়া হল,অাগোগ্য ক্লিনিকের ৫ তলায়।ইঞ্জিনিয়ার কাশেম ভাই ক্ল্যাসিক্যাল তবলা বাজিয়ে মাত করে রাখতেন। সেখানে নিয়মিত অাসর হতে লাগলো,সৈয়দপুরের জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,পাগলাপীরের রনজিত কুমার রায়,মায়া মনি বিথী,অাঃরাজ্জাক, সুরকার, গীতিকার, সংগীত শিল্পী অাজাদ,দোস মিজানুর রহমান তুহিন সহ অারো অনেকে সময় পার করতো।

স্মৃতিময ঘটনাঃ-১
একদিন জাহেদা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রোগ্রাম অায়োজন করা হল,হাজার হাজার দর্শক উপস্থিতিতে অনুষ্ঠান শুরু হল।কিন্তু লিটন স্যারের সোনার কন্যা গানে দর্শক মাতোয়ারা।রাজা ভাই ভাই গাইলেন,ও চেংরি কাক দেখাইস তুই গাও দুলানী। সামিনুর রহমান ভাই তো ভাওয়াইয়া গান করলেন। সেদিন হাবিবুর রহমান ভাই তার বাসায় খাওয়ালেন মজা করে। প্রোগ্রাম শেষ হল। কিন্তু প্রোগ্রামের মধ্যে অামি, লিটন স্যার,রনজিত কুমার রায় ও জাহিদ ভাই ছাড়া সবাই চলে গেল। পঞ্চাশ হাজার টাকা সর্ট পড়লো,তখন লিটন স্যার নিজের পকেট থেকে দিয়ে সবাইকে রক্ষা করলেন। সকাল বেলা ফাল্গুনী হোসেল থেকে খিচুড়ি খেয়ে বাসায় চলে অাসলাম। এ এক মহা অান্দময় শিক্ষা হল।

স্মৃতিময় ঘটনাঃ-২
বাংলাদেশ টেলিভিশনের অঞ্চল ভিত্তিক অনুষ্ঠান এর জন্য অামরা তখন কাজ করছি পুরোদমে।প্রতিদিন মহড়া হয়।ওস্তাদ সামিউল হাসান লিটন স্যার প্রত্যেককে গান প্রাকটিস করান। ঢাকা থেকে টিম অাসলো,ভিডিও দৃশ্য ধারণ করতে চলে গেলাম গীতিকার বেলায়েত হোসেনের বাড়িতে।সেখানকার প্রকৃতিময় জীবন ধারায় মিনহাজ উদ্দিন অাজাদ ভাই ও লিটন স্যার এর সোনাকন্যা গানের দৃশ্য ধারণ করা হল।তাজহাট জমিদার বাড়ী ও কারমাইকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ধারণ করা কিছু গানের দৃশ্য।

পল্লবী সরকার মালতী ও জাহিদ ভাইয়ের গানেরও দৃশ্য দারণ হল। ধারণ, করা মিজহাজ উদ্দিন অাজাদ ভাই বাবা সিরাজ উদ্দিন এর গানের দৃশ্য। এ দিকে ক্ষধার জ্বালায় সবার অবস্থা খারাপ। কোন কিছু ভাল লাগছেনা।লিটন স্যার সব শেষ করে নিজেই সিংগারা পুড়ি অার রুটি কিনে অানলেন এবং এক সাথে খেলাম। যেদিন বিটিভি ও বিটিভি ওয়াল্ডে সম্প্রচার হল সেদিন অানন্দেচিত্তে সবাই এক সাথে দেখে মজা করেছিলাম।

বলা যায়,লিটন স্যারের মিউজিক জ্ঞান এর তুলনা হয়না।সে যেমন,সুর-সংগীতে দক্ষ তেমনি তার মনটা হল কোমলতায় ভরা। তার হাত ধরে অসংখ্য সংগীত শিল্পী ও গীতিকবি সৃষ্টি হয়েছেন।তিনি বিনিময়হীন শর্ত ছাড়াই মানুষকে সংগীত শেখান। এমন কিংবদন্তি মানুষ ওস্তাদ সামিউল হাসান লিটনের প্রতি রইল অবিরাম দোয়া ভালবাসা।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020 DainikBanglarMukh.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com